ঢাকা মঙ্গলবার
২৮ মে ২০২৪
২০ মে ২০২৪

রমজানে কমলেও ঈদের পর বাড়ল ডিমের দাম


Reporter01
40

প্রকাশিত: ১৮ এপ্রিল ২০২৪
রমজানে কমলেও ঈদের পর বাড়ল ডিমের দাম Collected from online



নিজস্ব প্রতিবেদক

পবিত্র রমজানের মধ্যে কমেছিল ডিমের দাম। প্রতি ডজন নেমেছিল ১১০ থেকে ১১৫ টাকায়। তবে দাম কমার এই সুফলটি স্থায়ী হয়নি বেশিদিন। ঈদের পর পরই বাড়তে শুরু করেছে দাম। এক সপ্তাহের ব্যবধানে ফার্মের ডিমের ডজনে বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, রোজার সময় বাসাবাড়ি থেকে শুরু করে রেস্তোরাঁয় সব জায়গায় ডিমের চাহিদা কমে যায়। সেজন্য দামও অনেকটা পড়ে যায়। রোজা শেষে এখন চাহিদা বাড়ছে, ফলে দামও বাড়তে শুরু করেছে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) ঢাকার আগারগাঁও, শান্তিনগর ও কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতি ডজন ফার্মের বাদামি ডিম বিক্রি হচ্ছে ১২৫ থেকে ১৩৫ টাকা। আর সাদা রংয়ের ডিমের ডজন কিনতে হচ্ছে ১১৫ থেকে ১২০ টাকা দরে।

সপ্তাহখানেক আগে বাদামি ডিমের ডজন ১১৫ থেকে ১২০ এবং সাদা ডিমের ডজন ১১০ থেকে ১১৫ টাকায় কেনা গেছে। সেই হিসাবে এক সপ্তাহে দুই জাতের ডিমের দাম বেড়েছে ডজনে ১০ টাকা। এছাড়া দেশি মুরগি ও হাঁসের ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকার কাছাকাছি দরে।

এগ প্রোডিউসার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তাহের আহমেদ সিদ্দিকী জানান, ডিম উৎপাদনে খরচ বেড়েছে। তাছাড়া রোজা শেষ হয়ে যাওয়ায় চাহিদাও বেড়েছে। সেজন্য দাম কিছুটা বাড়তির দিকে। পোলট্রি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সুমন হাওলাদার বলেন, ক্ষুদ্র খামারিরা ডিম উৎপাদন করে ন্যায্য দাম পান না। ঢাকার কিছু চক্র ডিমের বাজার নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। দাম বাড়া বা কমানোর ক্ষেত্রে তাদের ভূমিকা থাকে বেশি। ফলে বাজারে অস্থিরতা সৃষ্টি হয়।


আরও পড়ুন:

বিষয়: